Skip to content

Video: ইচ্ছে ছিল ট্রেন চালানোর, বাড়িতেই সম্পূর্ণ ইলেকট্রিক ট্রেন বানালেন এক বাঙালি

    img 20220703 073231

    আমাদের জীবনে সফলতার এক রাস্তা বন্ধ থাকলে অন্য রাস্তা ঠিকই খোলা থাকে। এমনি এক ঘটনা সামনে এসেছে হুগলি জেলার শ্রীরামপুর থেকে। যার ছোটবেলার ইচ্ছে ছিল লোকো পাইলট হওয়ার। কিন্তু তা হয়ে ওঠেনি। নিজের হাতে ট্রেন চালানোর ইচ্ছে কে, ৬৫ বছর বয়সে গিয়ে সফল করেছেন তার কঠোর পরিশ্রম দ্বারা। লোকো পাইলট না হওয়াতে তার পরিশ্রম ও অনবদ্ধ ইচ্ছা শক্তির জেরে বাড়িতে বানিয়ে ফেলেছেন লোকাল ট্রেন। আসুন জানি পুরো খবর।

    img 20220703 084552

    হুগলি জেলার শ্রীরামপুরের বাসিন্দ প্রভাস আচার্য তার ছোটবেলায় স্বপ্ন ছিল ট্রেন চালক হওয়ার। কিন্তু সীমিত আর্থিক অবস্থার কারণে পড়াশোনা বেশি দূর চালিয়ে যেতে পারেনি। পরে তিনি নিজেই বাড়িতে লোকাল ট্রেন বানিয়ে ফেলেছেন। পূর্ব রেলের লোকাল ট্রেন এখন প্রভাস বাবুর বাড়িতেই চলছে। যিনি একদিন লোকো পাইলটের স্বপ্ন নিয়ে জীবনকে এগিয়েছে তিনি আজ নিজেই লোকাল ট্রেনের মালিক। যেখানে তিনি ট্রেনের সব দায়িত্ব সামলাচ্ছেন। ট্রেনের গন্তব্যস্থল, কোথায় দাঁড়াবে, কোথায় চলবে সবকিছুই এখন তার হাতে।

    প্রভাস বাবুর তৈরি ট্রেনটিতে সাধারণ ট্রেনের মতোই সুবিধা রয়েছে। কামরার ভেতরে দাঁড়িয়ে ধরে থাকার জন্য হাতল, বসার সিট, জানালা ও সিগন্যাল লাইট সহ সমস্ত কিছুই। চাইলেই প্রভাস বাবুর বাড়িতে এখন ঝা-চিক-চিক শব্দ। ট্রেনটি সম্পূর্ণ ইস্পাতের তৈরি এবং গতিশীলের জন্য রয়েছে ইলেকট্রিসিটি ক্যাপাসিটি।

     

    জানিয়ে রাখি, এই ধরনের ট্রেন কয়েকটি বিক্রিও করেছেন প্রভাস বাবু। তার প্রচেষ্টা থাকলেও বড় করে প্রকল্পটিকে ব্যবসায়িক রূপ দেয়ার মত আর্থিক ক্ষমতা নাই তার কাছে। তাই তিনি চান যদি কোনো উদ্যোগতা থাকে তার এই প্রকল্পটিকে ব্যাবসায়িক রূপ দিতে তাহলে এগিয়ে আসুক। তিনি এর ফাঁকে পুরোহিতের কাজও করে চলেছেন। নিজের ট্রেন শিল্পে বিপ্লবের স্বপ্ন দেখে চলেছেন ৬৫ বছর বয়সী প্রবাস বাবু।