Skip to content

সিম ও ওয়াইফাই-র দিন শেষ, এবার সিম ছাড়াই ভারতে স্যাটেলাইট ইন্টারনেট দিতে চলেছে সরকার

    img 20221030 104624

    দেশে স্যাটেলাইট ইন্টারনেট (satellite internet) যোগাযোগ সেবার প্রস্তুতি পুরোদমে চলছে। শীঘ্রই এই প্রক্রিয়া শুরু হতে পারে। এবিষয়ে টেলিকম মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব জানিয়েছেন, আগামী সাত থেকে আট মাসের মধ্যে স্যাটেলাইট যোগাযোগ পরিষেবা শুরু হতে পারে ভারতে। যার ফলে শহরের পাশাপাশি প্রত্যন্ত গ্রামেও মানসম্পন্ন ডিজিটাল পরিষেবা পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হবে।

    এই পরিষেবা একবার চালু হয়ে গেলে ইন্টারনেটের জন্য টেলিকম কোম্পানির ওপর মানুষের নির্ভরতা শেষ হবে। স্যাটেলাইটের মাধ্যমে সরাসরি ফোনে ইন্টারনেট সুবিধা পাওয়া যাবে, যা এটি ডিজিটাল ইন্ডিয়া প্রোগ্রামকে সফল করতেও অনেক দূর এগিয়ে যাবে। বর্তমান সময়ে টেলিকম কোম্পানিগুলোর দেওয়া ইন্টারনেট সেবায় গতি থেকে শুরু করে নেটওয়ার্ক ড্রপ থাকায় যে সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় গ্রাহকদের, সেই সমস্যা আর থাকবে না।

    img 20221030 104645

    স্যাটেলাইট কমিউনিকেশন সার্ভিস চালু হলে বড় ব্যবসার সুযোগও খুলে যাবে। রিপোর্ট অনুসারে, ভারতে স্যাটেলাইট যোগাযোগ পরিষেবার ব্যবসা ২০২৫ সালের মধ্যে ১৩ আরব ডলার হবে বলে অনুমান করা হয়েছে। ইলন মাস্কের কোম্পানি স্টারলিঙ্কও স্যাটেলাইট যোগাযোগ পরিষেবার জন্য আবেদন করেছে। মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, পাঁচটি টেলিকম কোম্পানিকে টেলিকম সেবার লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে। স্টারলিংক হল মাস্ক-প্রোমোটেড স্পেসএক্স-এর একটি সহযোগী প্রতিষ্ঠান।

    img 20221030 104710

    এবিষয়ে, ইলেকট্রনিক্স এবং আইটি প্রতিমন্ত্রী রাজীব চন্দ্রশেখর জানিয়েছেন, স্যাটেলাইট যোগাযোগ পরিষেবা এক ট্রিলিয়ন ডলারের ডিজিটাল অর্থনীতি গড়ে তুলতে সাহায্য করবে। ২০২৫-২৬ সাল নাগাদ, ১.২ বিলিয়ন ভারতীয় তাদের হ্যান্ডসেট থেকে সরাসরি ইন্টারনেটের সঙ্গে সংযোগ করতে সক্ষম হবে। তিনি আরও জানান, নাগাল্যান্ডের একটি জেলায় এমনকি কালেক্টরের কাছেও ইন্টারনেট সুবিধা নেই। স্যাটেলাইট যোগাযোগ পরিষেবার ফলে এই ধরনের জায়গাগুলির জন্য একটি বর হতে পারে।