Skip to content

পৃথিবীর 160 কিলোমিটার নিচে ‘পাতাললোকে’ পৌঁছেছেন বিজ্ঞানীরা! কী পেলেন জেনে নিন

    img 20230220 181920

    যখন জমি খননের কথা আসে, তখন মানুষের চাহিদা ততটুকুই শেষ হয়ে যায়, যতটুকু সে জলের স্তর পায়। এমনকি বড় বড় খনিতেও প্রয়োজনীয় ধাতু পাওয়া গেলেই খনন করা হয়। কিন্তু কখনো কি ভেবে দেখেছেন কি লুকিয়ে আছে পৃথিবীর ‘গর্ভে’? সম্প্রতি একটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা। এই তথ্য লুকিয়ে আছে পৃথিবীর ১০০ মাইল অর্থাৎ প্রায় ১৬০ কিলোমিটার নীচে। তবে বিজ্ঞানীরা কি ‘পাতাললোক’ খুঁজে পেয়েছেন?

    img 20230220 182133

    এমন লোকের অভাব নেই যারা বলে যে, পৃথিবীর নীচে একটি ভিন্ন পৃথিবী বাস করে, যদিও বিজ্ঞান তা বিশ্বাস করেন না। যদি বৈজ্ঞানিক দৃষ্টিকোণ থেকে পৃথিবীকে দেখেন, যেখানে বলা হয়েছে যে পৃথিবীর নীচে বিভিন্ন স্তর রয়েছে। টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা পৃথিবীর পৃষ্ঠের ১০০ মাইল, অর্থাৎ প্রায় ১৬০ কিলোমিটার নীচে পৃথিবীর একটি নতুন স্তর আবিষ্কার করেছেন। একে অ্যাথেনোস্ফিয়ার বলা হয়।

    img 20230220 182219

    পৃথিবীর নিচে এখন পর্যন্ত যে স্তরটি পাওয়া গেছে তা গলিত পাথরের। দাবি করা হয় যে, এই পাথুরে অঞ্চলটি আমাদের গ্রহের কমপক্ষে ৪৪ শতাংশ জুড়ে রয়েছে। আবিষ্কৃত শিলার স্তরটির তাপমাত্রা ১৪২৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের বেশি। নেচার জিওসায়েন্স জার্নালে বিজ্ঞানীদের ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। এতে বলা হয়েছে যে, যে স্তরটি আবিষ্কৃত হয়েছে তা গলিত শিলা সমন্বিত একটি সান্দ্র উপাদান।

    img 20230220 182109

    খবরে বলা হয়েছে, টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানী জুনলিন হুয়া পৃথিবীর নীচে পাওয়া স্তর সম্পর্কে বলেছেন যে, ‘এই আবিষ্কার ভবিষ্যতে গবেষণায় কার্যকর প্রমাণিত হতে পারে। এই গবেষণার সাহায্যে, গলিত শিলা সম্পর্কে আরও তথ্য সংগ্রহ করা যেতে পারে। পৃথিবীর অভ্যন্তরে কী ঘটছে তা জানার ক্ষেত্রে গবেষণা কার্যকর প্রমাণিত হতে পারে’।